Connect with us

Cricket News

ঘরের মাঠে উইন্ডিজকে হারালো কিউইরা

Advertisement

ঘরের মাঠে জয় দিয়ে উইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরিজ শুরু করল নিউজিল্যান্ড। আজ অকল্যান্ডে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে নিউজিল্যান্ড ৫ উইকেটে হারিয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন উইন্ডিজকে। এই জয়ে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল কিউইরা। ২৯ নভেম্বর মাউন্ট মঙ্গানুইয়ে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।

টস জিতে এদিন ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন কিউয়ি অধিনায়ক টিম সাউদি। মারমুখী মেজাজে শুরু করেছিলেন উইন্ডিজের দুই ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার ও ব্রান্ডন কিং। মাত্র ২০ বলে স্কোরবোর্ডে উদ্বোধনী জুটিতে ৫৮ রান যোগ করেন তারা। চতুর্থ ওভারের দ্বিতীয় বলে ফ্লেচারকে শিকার করে নিউজিল্যান্ডকে প্রথম সাফল্য এনে দেন পেসার লোকি ফার্গুসন। ১৪ বলে ৩টি চার ও ২টি ছক্কায় ৩৪ রান করেন ফ্লেচার।

ফ্লেচারের বিদায়ের পর বড় বিপদে পড়ে উইন্ডিজ। ৫৮ থেকে ৫৯ রানের মধ্যে নেই হয়ে যায় আরও ৪ উইকেট। অর্থাৎ ১ রানের ব্যবধানে ক্যারিবীয়দের ৫ উইকেটে পতন ঘটে। এরপর দলকে বিপদমুক্ত করেন অধিনায়ক কাইরন পোলার্ড ও ফাবিয়ান অ্যালেন। ১৩.৩ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করে দলকে ১৪৩ রানে পৌঁছে দেন এই জুটি। তার আগে ১০ম ওভারের পর বৃষ্টির কারণে খেলা বন্ধ হয়ে যায়। যে কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য ১৬ ওভারে নামিয়ে আনা হয়।

অ্যালেন ২৬ বলে ৩০ রান করে থামলেও ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন পোলার্ড। ৩৭ বলে ৪টি বাউন্ডারি ও ৮টি ওভারবাউন্ডারির সাহায্যে অপরাজিত ৭৫ রান করেন তিনি। অধিনায়কের দুর্দান্ত ইনিংসের কল্যাণে ১৬ ওভারে ৭ উইকেটে ১৮০ রানের সংগ্রহ পায় উইন্ডিজ। নিউজিল্যান্ডের লকি ফার্গুসন ৪ ওভারে ২১ রানে ৫ উইকেট নেন। ১৬ ওভারে ১৭৬ রানের টার্গেটে শুরুটা ভালো হয়নি নিউজিল্যান্ডের। ৩৪ রানে ২ উইকেট হারায় তারা। এরপর ৬৩ রানের মধ্যে আরও ২ উইকেট হারিয়ে লড়াই থেকে অনেকটাই ছিটকে পড়ে নিউজিল্যান্ড।

দলকে লড়াইয়ে ফেরান দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম গ্রহণকারী ডেভন কনওয়ে। এ ম্যাচ দিয়েই নিউজিল্যান্ডের পক্ষে অভিষেক হয় কনওয়ের। তার সঙ্গী ছিলেন জেমস নিশাম। পঞ্চম উইকেটে ৩৭ বলে ৭৭ রান যোগ করেন কনওয়ে-নিশাম। কনওয়ে ৫টি বাউন্ডারি ও ১টি ওভারবাউন্ডারির সাহায্যে ২৯ বলে ২৯ রান করেন। তবে মিচেল স্যান্টনারকে নিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করেন নিশাম। ২২ বলে অবিচ্ছিন্ন ৩৯ রান তুলে নিউজিল্যান্ডকে জয় এনে দেন নিশাম। তিনি ২৪ বলে ৫টি বাউন্ডারি ও ৩টি ওভাবাউন্ডারির সাহায্যে অপরাজিত ৪৮ রান করেন। আর ১৮ বলে ৩ ওভারবাউন্ডারির সাহায্যে অপরাজিত ৩১ রান করেন স্যান্টনার। ম্যাচ সেরা হয়েছেন ফার্গুসন।

Advertisement

#Trending

More in Cricket News