Connect with us

Cricket News

‘আগে তরুণরা শচীন, কোহলি, ধোনি হতে চাইত, এখন তারা বুমরা, সামি হতে চায়’ দাবি প্রাক্তন পেসার বালাজির

  • by

Advertisement

ভারতের প্রাক্তন পেসার লক্ষ্মীপতি বালাজি ভারতীয় দলের পেস বোলিং আক্রমণ নিয়ে উচ্ছ্বাসিত। দেশের ক্রিকেট ফাস্ট বোলারদের গভীরতা অভূতপূর্ব যার ফলে অস্ট্রেলিয়ায় দুটি ঐতিহাসিক টেস্ট সিরিজে জয়ী হয়েছে ভারত, এবং তাঁরা বিশ্বকে আরও শাসন করতে প্রস্তুত। লক্ষ্মীপতি বালাজি বলেছেন যে আগে তরুণদের ফোকাস কেবল ব্যাটসম্যানদের উপর ছিল, এবং তারা কেবল ব্যাটসম্যান হতে চাইত। যাইহোক, তিনি বিশ্বাস করেন, এখন প্রবণতা পরিবর্তিত হয়েছে, কারণ এখনকার বাচ্চারা বোলারদের পদাঙ্ক অনুসরণ করতে চায়।

জসপ্রীত বুমরাহ, ইশান্ত শর্মা এবং মোহাম্মদ সামি- এই ত্রয়ী ভারতকে অস্ট্রেলিয়ায় ২০১৮/১৯ টেস্ট সিরিজ জিততে সহায়তা করেছিল, এটিই হল পরিবর্তনের একটি বড় কারণ। “এর আগে, ১০ জন তরুণের মধ্যে নয়জন বিরাট কোহলি বা শচীন তেন্ডুলকর বা এমএস ধোনি হতে চাইত। আজকাল, তারা যশপ্রীত বুমরাহ, মোহাম্মদ সামি বা জাহির খানের মতো হতে চায়। ভারতের ফাস্ট বোলিং বুমরাহের গতি, শামির আধুনিক দক্ষতা, ইশান্ত শর্মার বিশাল অভিজ্ঞতা দিয়ে সংজ্ঞায়িত করা হয়” লক্ষ্মীপতি বালাজি ক্রিকেট নেক্সটকে বলেন।

ফাস্ট বোলারদের বিবর্তনের কারণেই ভারত ধারাবাহিকভাবে টেস্টে ২০ উইকেট নিতে সক্ষম: লক্ষ্মীপতি বালাজি

লক্ষ্মীপতি বালাজি উল্লেখ করেন যে তিন প্রধান পেসার ছাড়াও মোহাম্মদ সিরাজ, শার্দুল ঠাকুর, নবদীপ সাইনি, উমেশ যাদব এবং টি নটরাজন অন্যতম- যারা শেষ সিরিজ জয়ে উল্লেখযোগ্য ছিল। ৩৯ বছর বয়সী এই প্রাক্তন স্পিডস্টার বলেছেন, ভারতে পেস বোলিংয়ের এই বিবর্তনের কারণে প্রথম পছন্দের পেসাররা আহত হলেও উচ্চ মানের ব্যাক-আপের উপলব্ধতা রয়েছে। এর ফলে ভারত ধারাবাহিকভাবে টেস্টে ২০ উইকেট নিতে সক্ষম।

“বর্তমানে, সামি এবং বুমরাহ আমাদের সবচেয়ে দক্ষ পেসার। এমনকি ইশান্তকেও খেলানো যেতে পারে। ভুবি, শার্দুল ঠাকুর, মহম্মদ সিরাজের মতো আরও ফাস্ট বোলার রয়েছেন। টি নটরাজন, সাম্প্রতিক সময়ে, তামিলনাড়ুর একটি প্রত্যন্ত জায়গা থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে গেছেন, বাঁহাতি সিমারের শূন্যতা পূরণ করেছেন। এই সমস্ত ফাস্ট বোলারদের আগমনের ফলে ভারত ধারাবাহিকভাবে টেস্টে ২০ উইকেট নিতে সক্ষম” বালাজি আরও বলেন।

Advertisement

#Trending

More in Cricket News